ছড়া-কবিতা:: দুটি কবিতা - দিয়েগো ওখেদা; অনুবাদ: মৌসুমী ঘোষ

দুটি কবিতা
দিয়েগো ওখেদা
অনুবাদ: মৌসুমী ঘোষ


অঙ্ক খুব কাজের জিনিস

সব মাস্টারই বলেন – জীবনে অঙ্ক খুব কাজের জিনিস
সিঁড়ি ভাঙা অঙ্ক কষতে কষতে আমি ভাবি – যোগ শিখলে
কি আমি আরও অনেক বন্ধু পাতাতে পারব?
এই যে আমার এত দুঃখ, বিয়োগ কি পারবে সব ভুলিয়ে দিতে?
গুণ করতে জানলে আমি কি পারব দুঃস্থদের সাহায্য করতে?
আর ভাগ? ভাগ কি পারবে না সারা পৃথিবীতে সাম্য আর শান্তি এনে দিতে?

সব স্যারেরা বলেন – অঙ্ক শেখো
আর আমি ভাবি, জীবনের যত জটিল কুটিল সমস্যা
যদি অ্যালজেবরা দিয়ে পারতাম তার সমাধান করে দিতে!
ক্যালকুলাস কি বলতে পারবে আর কতদূর হাঁটতে হবে আমাকে?
আর জ্যামিতি কি দেখিয়ে দেবে না ঠিক কোন জায়গায় খুঁজলে
আমি পেতে পারি আমার হৃদয়ের দ্বিতীয় টুকরোটি?
--------


আমি কে?
 
নাম কী তোমার? হেডমাস্টার জিজ্ঞেস করলেন
তোমার বন্ধু ক’জন? দিদিমণি জিজ্ঞেস করলেন
বয়স কত? জিজ্ঞেস করল নার্স
তোমার পরিবার পরিজন? জানতে চাইল কাউন্সেলার
 
তোমার কম্পাস কোথায়? জ্যামিতির স্যার বললেন
তোমার হোমওয়ার্ক কোথায়? বায়োলজির ম্যাম ধমকালেন
 
পেন এনেছ? ইংরাজীর স্যার জিজ্ঞেস করলেন
পড়া করেছ? ফ্রেঞ্চ টিচারের প্রশ্ন
 
প্রশ্ন, প্রশ্ন এবং আরও প্রশ্ন
এক উত্তর দেওয়া ছাড়া আমি আর পারি না কিছুই
প্রশ্ন, প্রশ্ন, শতেক প্রশ্নবাণ
আমাকে ভুলিয়েছে আর সব
--------
লেখক পরিচিতিঃ দিয়েগো ওখেদা পেশায় একজন স্প্যানিশ ভাষা এবং সাহিত্যের শিক্ষক তিনি একজন কবিও জন্ম এবং বড়ো হওয়া কলম্বিয়াতে হলেও রুটিরুজির তাগিদে যৌবনে তাকে পাড়ি দিতে হয় আমেরিকায় আর ফিরে যেতে হয়নি, বর্তমানে আমেরিকার লুইসভিল শহরের এক স্কুলে তিনি অধ্যাপনা করেন এছাড়াও একজন ‘ওয়ার্ল্ড টিচার’ হিসেবে সারা বিশ্বে উনি এক ডাকে পরিচিত নিচের কবিতাগুলি তার প্রথম কবিতার বই ‘কোরাসন সিন বোররাদোর’ থেকে নেওয়া যে কোনো বয়সের কবিতাপ্রেমী এগুলির স্বাদ গ্রহণ করতে পারলেও, তিনি মূলত এই কবিতাগুলি লিখেছেন তার ছাত্রছাত্রীদের কেন্দ্র করে, যাদের জীবনের ভাবনা-চিন্তা, জটিলতা, পাওয়া না পাওয়া, বোঝা না বোঝা তাকে ভাবায় তাই তার কবিতার আপাত সহজ সাবলীলতার মধ্যেও আছে এক দর্শন যা পাঠকদের উপহার দেয় এক আলাদা অনুভূতি, তা সে যে বয়সি পড়ুয়াই হোক না কেন
--------
ছবিঃ আন্তর্জাল

No comments:

Post a comment