ছড়া-কবিতা:: লেজ - সুজাতা চ্যাটার্জী


লেজ
সুজাতা চ্যাটার্জী

কেউ কভু ভেবেছ কি, মানুষের কাছে,
যত কিছু দরকারি, সব কিছু আছে,
তার সাথে বল দেখি কী রকম হত -
একখানা লেজ যদি হত মোটা মতো?

জামাগুলো হত সব নতুন কাটিং,
ঠিক মতো ছ্যাঁদা করে, টাইট ফিটিং।
পার্লর-এ করা হত লেজগুলো ট্রিম,
মেয়েগুলো কম খেত, লেজ রেখে স্লিম।

শীতকালে লেজ ঢাকা, নিত সবে পরে,
বাঁদর টুপির সাথে, ম্যাচ করে করে।
নাক ছাবি, কান পাশা, সাতমণি হার,
লেজ ঝোলা যোগ হত, সাথে সাথে তার।

আড় চোখে অটোওয়ালা লেজগুলো মেপে,
হাঁক দিত, “শুনছেন, লেজগুলো চেপে!”
সাইকেলে পেছনেতে উঠত না লোক,
চালকের লেজে তার ঢেকে যেত চোখ!

জিনিস থাকলে হাতে, অসুবিধা নাই,
লেজ নেড়ে হয়ে যেত, হাই আর বাই।
ডানপিটে ছেলে যদি, পড়া যেত ভুলে,
কানটির সাথে স্যার, লেজ দিত মুলে।

মোট কথা, ভেবে দেখি, ভালো করে বেশ,
লেজের গুণের ভাই, নেই কোনও শেষ।
একা একা বসে বসে, ভাবি আমি তাই,
হায় হায়, মানুষের কেন লেজ নাই।।
_____
ছবিঃ লেখক

No comments:

Post a comment