ছড়া-কবিতা:: বন্ধু - সুজাতা চ্যাটার্জী

বন্ধু
সুজাতা চ্যাটার্জী

সেদিন যখন ফিরছি বাড়ি, স্কুলের ছুটির পরে,
একখান লোক হঠাৎ করে, পথ আগলে ধরে।
হাউ মাউ হাউ, ফ্যাচাৎ ফ্যাচাৎ, শব্দ করে নাকে,
হঠাৎ বলে, ‘খোকাবাবু, দাও না খুঁজে তাকে
সে যে আমার বড্ড আপন, বড়োই প্রিয়জন,
তাকে ছাড়া লাগছে না যে কোনও কাজেই মন।
ছোট্ট থেকে বন্ধু বড়ো, আমার সাথেই থাকে,
ক’দিন হল, কোথাও খুঁজে পাচ্ছি না যে তাকে
আমি বলি, ‘নামটি কী তার? দেখতে কেমন বল,
না হয় তোমায় পথ বলে দি, পুলিস স্টেশন চল
থাকত কোথা? করতো-টা কী? সে সব বল ভাই,
ভালো করে খুঁজতে গেলে, এসব জানা চাই
লোকটি বলে, ‘নাম জানিনে, শুধুই বাসি ভালো,
দেখতে খানিক আমার মতোই, রঙটি বড়ো কালো
আমার সাথেই থাকত সে যে, যখন যেথায় যাই,
আমি যখন করতাম যা, সেও করত তাই
বলেই আবার হাউ মাউ হাউ, কাঁদতে থাকে জোরে,
‘বন্ধু আমার আয় না ফিরে, কোথায় গেলি ওরে?
বন্ধু তোমার কেমন ভালো, তোমার কাছেই আছে,
আমারটা যে কোথায় গেল, আসছে না তো কাছে
এবার বুঝি, লোকটা পাগল, সন্দেহ নেই তাতে,
আমি তো ভাই আছি একাই, আর কেউ নেই সাথে।
এই না ভেবে যেই চেয়েছি মুখের পানে তার,
কোথায় গেল? এদিক ওদিক, কোত্থাও নেই আর।
একলা পথে, শিউরে উঠি, এটি কেমন মায়া?
তাকিয়ে দেখি, আমার পাশেই, আছে আমার ছায়া।।
_____

No comments:

Post a comment